logo
   প্রচ্ছদ  -   পুলিশ

ঈদ শেষে ফেরার পথে অজ্ঞান পার্টির খপ্পর থেকে বাঁচার পরামর্শ
Posted on Jun 06, 2019 01:57:15 PM.

ঈদ শেষে ফেরার পথে অজ্ঞান পার্টির খপ্পর থেকে বাঁচার পরামর্শ

রাস্তাঘাটে চলা ফেরা করার সময় বিপদ আপদ সম্পর্কে কেউ নিশ্চিত হয়ে বলতে পারেনা, কখন কার বিপদ চলে আসে। তেমনি এক আতংকের না অজ্ঞান পার্টি। এ পার্টির সদস্যরা সাধারণত ঈদকে মোক্ষম সময় ধরে নেমে পড়ে মাঠে। 



অজ্ঞান পার্টির প্রধান টার্গেট সাধারণ যাত্রীরা। এ পার্টির সদস্যরা এতটাই ধূর্ত যে তাদের দেখে চেনার উপায় নেই। বাস, ট্রেন, লঞ্চসহ বিভিন্ন যানবাহনে এ চক্রের সদস্যরা ছদ্মবেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে। টার্গেটকৃত ব্যক্তির সঙ্গে ভাব জমিয়ে যে কোনো খাবারের সঙ্গে মিশিয়ে দেয় নেশা জাতীয় ট্যাবলেট। যাত্রী অজ্ঞান হয়ে গেলে সর্বস্ব লুটে নেয় দুর্বৃত্তরা। এ চক্রের সঙ্গে মহিলা সদস্যও রয়েছে। অনেক সময় দুর্বৃত্তরা স্বামী-স্ত্রী সেজে যানবাহনে ওঠে। এরপর টার্গেটকৃত এক বা একাধিক ব্যক্তিকে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে অচেতন করে ফেলে। ফলে সাধারণ মানুষ খুব সহজেই তাদের খপ্পরে পরছে। তাদের এই অপকর্ম থেকে বাঁচতে চাই সচেতনতা। আসুন জেনে নেয়া যাক অজ্ঞান পার্টির খপ্পর থেকে নিজেকে রক্ষার কিছু বিশেষ পরামর্শ।

অজ্ঞান পার্টির খপ্পর থেকে বাঁচার পরামর্শসমূহঃ

১. ভ্রমন পথে অযাচিতভাবে অপরিচিত কেউ অহেতুক ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করলে তাকে পাত্তা দিবেন না।

২. আজকাল ডাবের ভিতরে সিরিঞ্জের মাধ্যমে চেতনানাশক ঔষধ মিশিয়ে থাকতে পারে। তাই কখন কোথা হতে তৃষ্ণা মিটাচ্ছেন সে ব্যাপারে সতর্ক থাকুন।

৩. কারো হাতে রুমাল দেখলে সতর্ক থাকুন। কারণ রুমালের মধ্যে ক্লোরোফর্ম মিশিয়ে আপনার নাকের কাছে ধরলেই আপনি অজ্ঞান হয়ে যাবেন।

৪. ফুটপাতে বা রাস্তার মোড়ে টং দোকান থেকে খাবার গ্রহণ করা থেকে বিরত থাকুন।

৫. ফেরিওয়ালা বা ভ্রাম্যমান কারো কাছ থেকে আচার, আমড়া, শসা, পেয়ারা প্রভৃতি খাবেন না।

৬. বাসে, ট্রেনে ভ্রমণের সময় লজেন্স বা চকলেট, আইসক্রিম ইত্যাদি জাতিয় কোন খাবার গ্রহণ করবেন না।

৭. সিএনজিতে চলার সময় যাত্রীরা ড্রাইভারের কাছ থেকে এবং ড্রাইভাররা যাত্রীদের কাছথেকে কোন খাবার গ্রহণ করবেন না।

৮. ভ্রমণের সময় নির্জণ পথ পরিহার করে সর্বদা গাড়ি চলাচল করে এবং লোক সমাগম থাকে এমন রাস্তা বেছে নিন।

৯. ভ্রমণের সময় চেষ্টা করবেন পরিচিত কাউকে সাথে নিতে।

শুধু একটু সচেতনতাই রক্ষা করতে পারে আপনার জীবন ও সম্পদ।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   ডেঙ্গু প্রতিরোধে লালবাগ বিভাগের মশক নিধন কার্যক্রম
   ৪০০ জন শিক্ষার্থীর উপস্থিতিতে ট্রাফিক সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত
   বাংলাদেশ পুলিশের ৩ কর্মকর্তার বদলি
   মালিতে জাতিসংঘ মিশনে নিহত কনস্টেবল ওমর ফারুকের জানাজা সম্পন্ন
   চট্টগ্রাম মহানগরী এলাকায় বিশেষ অভিযানের ফলাফল
   ডিএমপি’র ২ কর্মকর্তার বদলি
   জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ নেতৃবৃন্দের সাথে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার এর মত বিনিময় সভা
   জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের র‌্যালি
   বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের শ্রদ্ধাঞ্জলি
   প্রেস বিজ্ঞপ্তি
   শেষ কবে বাড়িতে ঈদ করেছি মনে নেই- পুলিশ কমিশনার
   ঈদ উল আযহা উপলক্ষে কোরবানীর পশুর হাট পরিদর্শন করেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার
   অবসরের পরও দেশের স্বার্থে সবসময় নিয়োজিত থাকবো- ডিএমপি কমিশনার
   ডিএমপি কমিশনারের দৌড়ে এগিয়ে যারা
   পদক ও সনদ নিয়ে পুলিশ কমিশনারের সাথে সাক্ষাৎ করলেন সিএমপি কারাতে ও বক্সিং দল।
   বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটিতে মাদক, কিশোর অপরাধ, ইভটিজিং, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সভা অনুষ্ঠিত
   ডিবি-সিটিটিসি কম্পাউন্ডে সৌন্দর্য বর্ধন ও ওয়াকওয়ে নির্মাণের শুভ উদ্বোধন করলেন-আইজিপি
   আসন্ন পবিত্র ঈদ-উল আযহা-২০১৯ উপলক্ষে মতবিনিময় সভা
   ডিএমপি’র ঊর্ধ্বতন ৪ কর্মকর্তার বদলি
   মহানগর গোয়েন্দা (উত্তর) বিভাগের অভিযানঃ ১০,০০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ০২ জন গ্রেফতার
   ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতা মূলক কর্মসূচি
   মহানগর গোয়েন্দা (বন্দর) বিভাগের অভিযানঃ ১২৫০ পিস ইয়াবাসহ ০৩ জন গ্রেফতার
   ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতা মূলক কর্মসূচি
   ডিএমপি’র সহকারী পুলিশ কমিশনার পদে বদলি
   ডিএমপি’র উপ-পুলিশ কমিশনার পদমর্যাদার ২ কর্মকর্তার বদলি
   ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতায় ডিএমপি’র ট্রাফিক পুলিশ
   অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদমর্যাদার কর্মকর্তার বদলি
   ডেঙ্গু আক্রান্ত পুলিশের সংখ্যা বাড়ছে
   গুজব শেয়ার করলে ডিজিটাল আইনে মামলা, চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার
   অবসরে গেলেও আপনি পুলিশ হিসেবে পরিচিত হবেন- ডিএমপি কমিশনার


  পুরনো সংখ্যা