logo
   প্রচ্ছদ  -   আন্তর্জাতিক

বিলুপ্ত পাখির দেখা মিলল লাখ বছর পর!
Posted on May 15, 2019 01:16:31 PM.

বিলুপ্ত পাখির দেখা মিলল লাখ বছর পর!

ছবির মতো সাজানো দ্বীপ আলডাবরা। এটি ভারত মহাসাগরের ওপর বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম প্রবাল দ্বীপ।  এই দ্বীপেই একসময় বাস ছিল ‘হোয়াইট থ্রোটেড রেল’-এর। প্রায় এক লাখ ৩৬ হাজার বছর আগে সমুদ্রের তলদেশে নিশ্চিহ্ন হয়ে যায় দ্বীপটি। বাসস্থান খুইয়ে হারিয়ে গিয়েছিল পাখিটিও। কিন্তু প্রকৃতিবিজ্ঞানীরা বলছেন, আবার ফিরে এসেছে বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া সেই ‘হোয়াইট থ্রোটেড রেল’।


তবে এ ফিরে আসার কাহিনিও বিচিত্র। এ নিয়ে দ্বিতীয়বার তারা অবলুপ্তির গহ্বর থেকে ফিরে এলো। বিশেষজ্ঞদের দাবি, লাখ বছর আগের ওই ঘটনার কয়েক হাজার বছর পর পাখিটি আবার ফিরে এসেছিল। সে সময়ে সমুদ্রের পানি নেমে গিয়েছিল। পানি নামতেই দ্বীপটি আবার জেগে ওঠে। আর তখনই পাখিটি ফের রাজত্ব গড়ে তোলে এ প্রবাল দ্বীপে। এ দুই ঘটনার আগের ও পরের জীবাশ্ম খুঁজে পেয়েছিলেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে এখন তাঁরা বলছেন, ‘আলডাবরা দ্বীপে পাখিটি এখনো রয়েছে।’

বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, একে ‘ইটেরেটিভ ইভল্যুশন’ বলে। অর্থাৎ কোনো প্রাণীর উত্তরসূরিদের মধ্যে কোনো একটি প্রজাতির একাধিক বিবর্তন ঘটে। ইতিহাসের বিভিন্ন সময়ে ফিরে ফিরে আসে তারা। অন্যান্য প্রাণীর ক্ষেত্রে এমনটা দেখা গেলেও ‘রেল’ বা মাটিতে বসবাসকারী ছোট বা মাঝারি আকারের পাখিদের মধ্যে এমন নজির এ প্রথম। পাখিদের মধ্যেই এটি বেশ উল্লেখযোগ্য ঘটনা।

বিজ্ঞানবিষয়ক পত্রিকা ‘লিনিয়ান সোসাইটি’তে গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে।

পোর্টসমাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী ডেভিড মারটিল বলেন, ‘রেল বা কোনো পাখির মধ্যেই আমরা এ ধরনের ঘটনা দেখিনি। এমন কোনো উদাহরণ নেই।’

রেলের ফিরে আসার ইতিহাস নিয়ে বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, ‘রেল’ পরিবারের পাখিদের পূর্বপুরুষের বাস ছিল পূর্ব আফ্রিকার উপকূল থেকে ৪০০ কিলোমিটার দূরে ভারত মহাসাগরের মাদাগাস্কার দ্বীপে। একসময় এদের সংখ্যা এত বেড়ে যায় যে এরা দ্বীপ ছেড়ে অন্য স্থানে পাড়ি জমায়। কেউ উত্তরের দিকে উড়ে যায়, কেউ দক্ষিণে। কিন্তু এরা কেউই তেমন উড়তে পারত না। ফলে লম্বা পথ পাড়ি দিতে গিয়ে অনেকেই ভারত মহাসাগরে ডুবে যায়। যারা পশ্চিমে যায়, তারা আফ্রিকার মূল ভূখণ্ডে পৌঁছে। কিন্তু অচেনা অজানা জায়গায় গিয়ে তারা বিপদ ডেকে আনে। প্রাণ হারায় অধিকাংশই। কারো কারো ভাগ্য ভালো ছিল। তারা মরিশাস, রিইউনিয়ন, আলডাবরা পৌঁছে এবং সেখানে রাজত্ব গড়ে তোলে। কিন্তু সময়ের সঙ্গে তারা ওড়ার ক্ষমতাই হারিয়ে ফেলে। কারণ ওই সব দ্বীপে তাদের ওড়ার প্রয়োজন পড়ত না। ফলে দ্বীপেই বন্দি হয়ে পড়ে। তাই দ্বীপ যখন সমুদ্রের তলদেশে ডুবতে থাকে, তারা আর পালানোর সুযোগ পায়নি। তত দিনে তারা আর একটুও উড়তে পারে না। ফলে দ্বীপের সঙ্গেই নিশ্চিহ্ন হয়ে যায় তারা। ঠিক যা ঘটেছিল ডোডো পাখিদের ক্ষেত্রে। কিন্তু ডোডো যা পারেনি, তাই করে দেখিয়েছে ‘হোয়াইট থ্রোটেড রেল’।

বিজ্ঞানী মারটিলের ভাষায়, ‘ভারত মহাসাগরের ওপর আলডাবরাই একমাত্র দ্বীপ, যেখানে এমন জীবাশ্ম রয়েছে, যা অবলুপ্তির প্রমাণ দেয় এবং দেখিয়ে দেয় সেখান থেকেও ফিরে আসা যায়।’ 
সূত্র : আনন্দবাজার।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   যুক্তরাষ্ট্রকে ইরানের হুঁশিয়ারী
   ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল বালি
   ইরানের সঙ্গে ইসরায়েলের যুদ্ধের প্রস্তুতি চলছে
   ট্রাম্পের তীব্র সমালোচনায় থেরেসা মেও
   ইসরাইলের অস্ত্র কারখানায় ভয়াবহ আগুন
   মন্ত্রিসভা থেকে সিধুর পদত্যাগের ঘোষণা
   বিমান বিধ্বস্ত হয়ে সুইডেনে ৯ আরোহীর মৃত্যু
   বিমান টিকিটে কর বসাচ্ছে ফ্রান্স
   আমেরিকার সব ব্যবস্থা ব্যর্থ হয়েছে: রুহানি
   অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে আজ থেকে অভিযানের ঘোষণা ট্রাম্পের
   আসামে বন্যায় নিহত ৭
   নেপালে বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৩
   ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি বাতিল ট্রাম্পের
   কারাগারে মুসলিমদের আচরণে মুগ্ধ বন্দীরা
   ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে হামলা: অস্ত্র ফেরত কর্মসূচি শুরু
   সোমালিয়ায় বোমা হামলা: নিহত ৭
   যুক্তরাষ্ট্রে জরুরি অবস্থা জারি
   চীনে বন্যায় নিহত ৬১, গৃহহীন ৪ লাখ মানুষ
   সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে ব্যাপক সংঘর্ষ, শতাধিক যোদ্ধা নিহত
   ঘূর্ণিঝড়ে গ্রিসে ৬ জনের প্রাণহানি
   ভয়ঙ্কর যুদ্ধবিমান আনছে ভারত
   ভয়াবহ আত্মঘাতি হামলায় আফগানিস্তানে নিহত ১০
   তুরস্কে পৌঁছাল ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ‘এস ৪০০’
   হোয়াইট হাউজেই থাকবেন ইমরান
   ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার আটকের চেষ্টা ইরানের
   গ্রিসে শক্তিশালী টর্নেডোর আঘাতে নিহত ৬
   এবার মহাকাশে খোঁজ মিলল সোনা দিয়ে গঠিত গ্রহাণুর!
   কাতারে দু’টি প্রশিক্ষণ প্লেনের সংঘর্ষ
   ট্রাম্পের মন্তব্য অসম্মানজনক: ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী
   বিশ্বের বৃহত্তম সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র চালু করছে আবুধাবি


  পুরনো সংখ্যা