logo
   প্রচ্ছদ  -   অর্থনীতি

বৈশ্বিক প্রতিযোগিতা সূচকে বাংলাদেশের স্থান ১০৫
Posted on Oct 10, 2019 07:24:32 PM.

বৈশ্বিক প্রতিযোগিতা সূচকে বাংলাদেশের স্থান ১০৫

বাংলাদেশ বৈশ্বিক প্রতিযোগিতা সূচক-২০১৯ এ ১৪১টি দেশের মধ্যে ১০৫তম স্থানে রয়েছে। ওয়াল্ড ইকনোমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) এক রিপোর্টে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।


ডায়ালগ (সিপিডি) আজ রাজধানীর ইকনোমিক রিপোর্টার ফোরাম (ইআরএফ) মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ রিপোর্ট প্রকাশ করে। এতে বলা হয়, বিগত বছরের ন্যায় এ বছরেও দেশের সার্বিক সূচক ৫২.১ পয়েন্টে অপরিবর্তিত রয়েছে।

সিপিডির রির্চাচ পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম সংবাদ সম্মেলনে রিপোর্টটি পাঠ করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশের সার্বিক স্কোর অপরিবর্তিত রয়েছে। পণ্য বাজার এবং স্বাস্থ্যে বাংলাদেশের অবস্থানের উন্নতি হয়েছে। পণ্য বাজারে বাংলাদেশের অবস্থান ৩৬তম।

রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়, ২০১৯ জিসিআই’তে শীর্ষস্থানে রয়েছে সিঙ্গাপুর। এরপর যুক্তরাষ্ট্র, হংকং, নেদারল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড, জাপান, জামার্নি, সুইডেন, যুক্তরাজ্য ও ডেনমার্কের অবস্থান।

দক্ষিণ এশীয় দেশসমূহের মধ্যে ভারতের অবস্থান শীর্ষে। ভারত ৬১.৪ স্কোর করে ৬৮ তম অবস্থানে, ৫৭.১ স্কোর করে শ্রীলংকা ৮৪ তম অবস্থানে, নেপাল ৫১.৬ স্কোর করে ১০৮তম অবস্থানে এবং পাকিস্তান ৫১.৪ স্কোর করে ১১০তম অবস্থানে রয়েছে। ওয়াল্ড ইকনোমিক ফোরাম ২০০১ সালের পর থেকে এই সূচক প্রকাশ করে আসছে।

সিপিডি সংবাদ সম্মেলনে ”বাংলাদেশ বিজনেস এনভাইরনমেন্ট স্টাডি-২০১৯” এর ওপর একটি সমীক্ষা প্রকাশ করে। গোলাম মোয়াজ্জেম সমীক্ষাটি উপস্থাপনকালে বলেন, বাংলাদেশকে ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ নিশ্চিত করতে এবং বৈশ্বিক প্রতিযোগিতা সূচকে দেশে অবস্থানের উন্নতি করতে চারটি প্রধান চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে।

তিনি বলেন, প্রথমে বাংলাদেশকে শাসন ও প্রতিষ্ঠান, অবকাঠামো, আথির্ক ব্যবস্থা এবং ব্যবসা পরিচালনার ওপর অধিক গুরুত্ব দিতে হবে। তিনি বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য প্রযুক্তির অভাব রয়েছে, প্রয়োজনীয় নিয়ন্ত্রক কাঠামো ও দক্ষতার অনুপস্থিতি এবং ব্যবসায়িদের জন্য পরিস্কার কোন দিক-নির্দেশনা না থাকায় উদ্বেগ বাড়ছে।

সিপিডি পরিচালক মোয়াজ্জেম দক্ষতা, জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে সরকারি সেবা, আর্থিক খাত এবং পাবলিক সেক্টরে ব্যাপক রেগুলেটরি সংস্কারের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সিপিডি নির্বাহী পরিচালক ড. ফাহমিদা খাতুন এবং সিনিয়র রিচার্চ ফেলো তৌফিকুল ইসলাম খান উপস্থিত ছিলেন।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   যুক্তরাষ্ট্রে ৬৫ লাখ পিপিই রফতানি করল বাংলাদেশ
   নতুন করে দরিদ্র হয়েছে ৩ কোটি ৬৯ লাখ মানুষ
   মোবাইলে বিনা খরচে সহায়তার অর্থ পাবে ৫০ লাখ পরিবার
   আরও কমেছে চালের দাম
   করোনার প্রভাবে বিশ্বে বাড়ছে বেকারত্ব
   দুই মাস সব ধরনের ব্যাংক ঋণের সুদ স্থগিত
   উদীয়মান অর্থনীতি: চীন-ভারতের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ
   করোনা সঙ্কটেও শক্তিশালী অর্থনীতিতে ৯ম অবস্থানে বাংলাদেশ
   মোবাইল ব্যাংকিংয়ে বেতন : ক্যাশ আউটে শ্রমিকদের চার্জ কমল
   যুক্তরাষ্ট্রে ২১ বছরে সর্বনিম্ন তেলের দর
   করোনায় অর্থনৈতিক ঝুঁকিতে পড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ
   করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত রফতানি
   করোনার ধাক্কায় মার্চে রপ্তানি কমেছে ৫ হাজার কোটি টাকা
   রমজান সামনে রেখে ভোগ্যপণ্যের পর্যাপ্ত সরবরাহ, শঙ্কা নেই দাম বাড়ার
   প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা প্যাকেজ সময়োপযোগী
   করোনা : আজ থেকে ব্যাংক লেনদেন ৩ ঘণ্টা
   ফোর্বসের তালিকায় বাংলাদেশের ইশরাত করিম ও রাবা খান
   করোনা মোকাবেলায় বিভিন্ন দেশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে চীন
   করোনার কারণে ঋণগ্রহীতাদের ছাড়
   ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হচ্ছে আজ
   বাজারে আসছে ২০০ টাকার নোট
   বৃহস্পতিবারের মুদ্রা বিনিময় হার
   করোনায় অর্থনৈতিকভাবে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্তের তালিকার শীর্ষে ইইউ
   দাম কমলো পেঁয়াজ-রসুনের
   ব্যাংক বন্ধ হলে ১ লাখ টাকা পাওয়ার তথ্য গুজব
   জনগণকে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ বাংলাদেশ ব্যাংকের
   বিটিআরসিকে হাজার কোটি টাকা দিল জিপি
   মুজিববর্ষ: প্রথমবারের মতো চালু হচ্ছে ২০০ টাকার নোট
   প্রতি ভরিতে স্বর্ণের দাম বাড়লো ১ হাজার ১৬৬ টাকা
   চট্টগ্রাম গাজীপুর নারায়ণগঞ্জে বন্ধ হচ্ছে কারখানা


  পুরনো সংখ্যা